কমনরুম

অ্যালুমিনিয়াম ফয়েলের অন্য ব্যবহার

ফিচার ডেস্ক | ১৯:৫৯:০০ মিনিট, জুন ১২, ২০১৯

অ্যালুমিনিয়াম ফয়েল পেপার রান্নাঘরের অত্যন্ত প্রয়োজনীয় একটি উপকরণ। খাবার বেক ও সংরক্ষণের জন্য এটি ব্যবহার করা হয়। তাছাড়া জানালার গ্রিল ও লোহার জিনিসপত্র পরিচ্ছন্নতার কাজেও কখনো কখনো এটি ব্যবহার করা হয়। এর বাইরেও অ্যালুমিনিয়াম ফয়েলের ব্যবহার রয়েছে। একটি উদাহরণ দিয়ে বলা যায়,   চীন ও রাশিয়ায় অনেক আগে থেকেই পিঠে ব্যথা, ঘাড়, হাত-পা ও জয়েন্টে ব্যথা, শরীরের নানা প্রদাহ থেকে আরোগ্য লাভের জন্য আক্রান্ত স্থানে অ্যালুমিনিয়াম ফয়েল পেপারের প্রলেপ দেয়ার প্রচলন রয়েছে। জেনে নিন অ্যালুমিনিয়াম ফয়েল পেপারের অন্যান্য ব্যবহার সম্পর্কে—

পুড়ে গেলে

রান্নার সময় আগুন, গরম পানি বা গরম তেলে যদি ত্বকের কোনো অংশ পুড়ে যায়, তাহলে অ্যালুমিনিয়াম ফয়েল ব্যবহার করতে পারেন। এটি পুড়ে যাওয়া থেকে সৃষ্ট ব্যথা দূর করে ও আরাম দেয়।  পোড়া স্থানে কয়েক মিনিট ধরে ঠাণ্ডা পানির ঝাপটা দিন। ত্বক থেকে পানি ভালোভাবে শুকিয়ে গেলে পোড়া স্থানের ওপর গজ দিয়ে ব্যান্ডেজ করুন। এবার ব্যান্ডেজের ওপর ভালোভাবে অ্যালুমিনিয়াম ফয়েল পেপার পেঁচিয়ে রাখুন। ব্যথা ও জ্বালা কমে গেলে খুলে ফেলুন। অ্যালুমিনিয়াম ফয়েলের দুটি অংশ। অ্যালুমিনিয়াম ফয়েলের উপরের অংশটি উজ্জ্বল ও ভেতরের অংশটি ম্যাট। আরোগ্য স্থানে উষ্ণতা ও তাপ দেয়ার প্রয়োজন হলে ফয়েল পেপারের উজ্জ্বল অংশ ত্বকের ওপর সরাসরি ব্যবহার করুন ও ম্যাট অংশ বাইরের দিকে রাখুন। আবার যদি ঠাণ্ডা ও তাপ প্রতিরোধ করতে চান, তাহলে ম্যাট অংশ ত্বকের ওপর ও উজ্জ্বল অংশ বাইরের দিকে রাখুন।

 

কাপড় ভালো ইস্ত্রি করতে

কাপড় ভালো ও দ্রুত ইস্ত্রি করার জন্য আয়রন বোর্ডের কভারের নিচে অ্যালুমিনিয়াম ফয়েল সেট করে নিন। এবার কাপড় ইস্ত্রি করুন অনায়াসে ও কম সময়ে।

 

ব্যথানাশক

শরীরের যে অংশে ব্যথা, সে স্থানে অ্যালুমিনিয়াম ফয়েল পেপার দিয়ে পেঁচিয়ে রাখুন। পেপারটিকে শরীরের সঙ্গে সংযুক্ত করতে ব্যান্ডেজ ব্যবহার করতে পারেন। সারা রাত এভাবে রেখে দিন। টানা ১০-১২ দিন নিয়মিত ব্যবহারের পর দু-এক সপ্তাহ বিরতি দিন।

 

ফ্লু ও ঠাণ্ডার সমস্যা সমাধান

ইনফেকশন প্রতিরোধে অ্যালুমিনিয়াম ফয়েল  প্রতিরোধক হিসেবে কাজ করে। ফ্লু ও ঠাণ্ডা লাগলে  যদি অ্যান্টিবায়োটিক না খেতে চান, তাহলে ফয়েল পেপার ব্যবহার করতে পারেন।  সেক্ষেত্রে পায়ের পাতায় কয়েক স্তরে অ্যালুমিনিয়াম ফয়েল পেপার পেঁচিয়ে রাখুন। তবে প্রতিটি স্তরের মধ্যে তুলা বা কাগজ দিন। এভাবে ১ ঘণ্টা রেখে দিন। তারপর খুলে ফেলুন। ২ ঘণ্টা বিরতি দিয়ে আবার একই প্রক্রিয়ায় পায়ের পাতা ফয়েল পেপার দিয়ে পেঁচিয়ে রাখুন। তারপর ১ ঘণ্টা রেখে খুলে ফেলুন। এভাবে সাতদিন ধরে নিন। বলা যায়, এ পদ্ধতি ফ্লু থেকে দ্রুত সেরে ওঠার সম্পূর্ণ নিরাপদ ও প্রাকৃতিক উপায়।

 

চিনি জমাট বেঁধে গেলে

চিনি জমাট বা দানা বেঁধে গেলে তা ফয়েল পেপারে জড়িয়ে ওভেনে ৫ মিনিট রেখে বের করে ফেলুন। চিনির ঝরঝরে ভাব ফিরে আসবে।

 

সূত্র: গুড হাউজ কিপিং