টকিজ

সালমানের ‘ভারত’ ১০০ কোটির ক্লাবে পৌঁছলেও...

ফিচার ডেস্ক | ০০:০০:০০ মিনিট, জুলাই ১২, ২০১৯

এই রোদ, এই বৃষ্টি—এমন আবহাওয়ার সঙ্গেই যেন তাল মিলিয়ে এগিয়ে চলছে সালমান খান-ক্যাটরিনা কাইফ অভিনীত ছবি ভারত। ঈদুল ফিতরে মুক্তির পর থেকে গত কয়েক দিনে বক্স অফিসে নাটকীয়ভাবেই উত্থান-পতনের মুখোমুখি হচ্ছে ছবিটি। তবে শেষ পর্যন্ত মুক্তির চারদিনের মাথায় আয়ের হিসাবে ভারত ১০০ কোটির ক্লাবে জায়গা করে নিতে সক্ষম হয়েছে। মুক্তির চতুর্থ দিনে এসে স্থানীয় বাজার থেকে ছবিটির মোট আয় দাঁড়িয়েছে ১২২ কোটি ২০ লাখ রুপি। আলী আব্বাস জাফর নির্মিত এ ছবির নির্মাণ ব্যয় ছিল প্রায় ১০০ কোটি রুপি।

সালমান-ক্যাটরিনা অভিনীত এ ছবি এবার ঈদে বিপুলসংখ্যক প্রেক্ষাগৃহে মুুক্তি পায়। এক্ষেত্রে ছবিটির আগে অর্থাৎ প্রথম স্থানে অবস্থান করছে আমির খান, অমিতাভ বচ্চন ও ফাতিমা সানা শেখ অভিনীত থাগস অব হিন্দুস্তান ছবিটি। গত বছরের দিওয়ালি উৎসবে মুক্তি পায় থাগস অব হিন্দুস্তান। মজার ব্যাপার হলো, থাগস অব হিন্দুস্তান ও ভারত দুটি ছবিই উল্লেখযোগ্যসংখ্যক অগ্রিম টিকিট বিক্রি করতে সক্ষম হয়।

ভারত মুক্তির প্রথম দিনে আয় করে ৪২ কোটি ৩০ লাখ রুপি। এর পরদিনই সে গতি মন্থর হয়ে যায়। দ্বিতীয় দিনে আয় করে ৩১ কোটি রুপি। তৃতীয় দিনে আরো কমে গিয়ে দাঁড়ায় ২২ কোটি ২০ লাখ রুপি। গত শনিবার ভারত আয় করে ২৬ কোটি ৭০ লাখ রুপি। এমন তথ্য জানাচ্ছেন চলচ্চিত্রের বাণিজ্যবিষয়ক বিশেষজ্ঞ তারান আদর্শ।

তবে ছবিটির ভাগ্য সামনের দিনে কোন দিকে মোড় নেয়, সে বিষয়ে এখনই কোনো চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে পৌঁছতে রাজি নন প্রযোজকরা। তাদের প্রত্যাশা, শেষ পর্যন্ত অনেকটা পথ পাড়ি দিতে সক্ষম হবে ভারত।

উল্লেখ্য, শুধু মুক্তি নয়, ভারত ছবির নির্মাণ নিয়েও যথেষ্ট কাঠখড় পোড়াতে হয়েছে সালমান খানকে। প্রথমত, কুমুদ চরিত্রে প্রিয়াংকা চোপড়াকে নেয়া হলেও পরবর্তী সময়ে প্রিয়াংকা সরে যান। এরপর সে স্থানে যুক্ত হন ক্যাটরিনা কাইফ। টাইগার জিন্দা হ্যায় এর পর সালমান-ক্যাটরিনা ফের একত্রে কাজ করলেন এ চলচ্চিত্রে। আলী অব্বাস জাফর পরিচালিত এ চলচ্চিত্রের প্রথম টিজার মুক্তি পায় ২০১৮ সালের ভারতের স্বাধীনতা দিবসে। ২০১৪ সালের দক্ষিণ কোরিয়ান চলচ্চিত্র ওড টু মাই ফাদার অবলম্বনে তৈরি এ চলচ্চিত্রে অন্যান্য চরিত্রে রয়েছেন দিশা পাটানি, টাবু, জ্যাকি শ্রফসহ অনেকে।

 

সূত্র: ডিএনএ