আন্তর্জাতিক খবর

বেকারত্বের প্রতিবাদে মোদির সমাবেশে গাউন পরে পাকোড়া বিক্রি

নিজস্ব প্রতিবেদক | ১৬:১৮:০০ মিনিট, মে ১৫, ২০১৯

বেকারত্বের বিরুদ্ধে অভিনব এক প্রতিবাদ করেছে ভারতের চণ্ডীগড় রাজ্যের ১২ জন শিক্ষার্থী। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির নির্বাচনী প্রচারণায় গ্রাজুয়েশন শেষে সমাবর্তনের পোশাক পরে পাকোড়া বিক্রিতে নেমেছিলেন তারা। পাকোড়ার নামও দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রীর নামে, ‘মোদিজি কা পাকোড়া’।

এ ঘটনা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপকভাবে আলোচিত হচ্ছে। অবশ্য এ ঘটনার জন্য ওই ১২ শিক্ষার্থীকে আটকও করেছিল পুলিশ। স্থানীয় পুলিশ কর্মকর্তা বলদেব কুমার গণমাধ্যমে বলেছেন, ‘আমরা ১০-১২ জন কলেজ শিক্ষার্থীকে হেফাজতে নেয়া হয়েছিল। সমাবেশ শেষ হওয়ার পর তাদের ছেড়ে দেওয়া হয়।’

মঙ্গলবার চণ্ডীগড়ে বিজেপি প্রার্থী কিরণ খেরের হয়ে প্রচারে যান প্রধানমন্ত্রী। তার সমাবেশের আগে সভাস্থলের পাশেই সমাবর্তনের কালো পোশাক পরে পকোড়া ভেজে বিক্রি করা শুরু করেন ছাত্রছাত্রীরা।

গেল বছর জানুয়ারিতে একটি সাক্ষাৎকারে নরেন্দ্র মোদি বলেছিলেন, যারা পাকোড়া বিক্রি করে দিনে ২০০ টাকা আয় করছেন, তাদের বেকার বলা যায় না। এ বছরই প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনে দেখা গেছে, ভারতে বেকারত্বের হার বেড়েছে ৬ দশমিক ১ শতাংশ। যা ১৯৭০ সালের পর থেকে সর্বাধিক।

প্রতিবাদী ওই শিক্ষার্থীদের মধ্য থেকেই এক শিক্ষার্থী ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ‘মোদিজি (প্রধানমন্ত্রী) আমাদের পাকোড়া বিক্রির যে নতুন কর্মসংস্থান করেছেন, সেজন্য তাকে এখানে ধন্যবাদ জানাতে এসেছি। মোদির সভায় আমরা পাকোড়া বেচতে চাই, যাতে তিনি বুঝতে পারেন যে একজন শিক্ষিত বেকারের জন্য পাকোড়া বিক্রি করাটা কতটা মহান কাজ।’

পাকোড়া বিক্রির এই ভিডিও ইতোমধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে গেছে। ভিডিওতে দেখা যায়, চিৎকার করে ডেকে ডেকে এক শিক্ষার্থী পাকোড়া বিক্রি করছেন। তিনি বলছেন, ‘ইঞ্জিনিয়ারদের তৈরি পাকোড়া খেয়ে যান', ‘বিএ ও এলএলবির পাকোড়া বিক্রি হচ্ছে।’