টকিজ

গেম অব থ্রোনস : স্টারবাকের কফি কাপ এল কীভাবে?

ফিচার ডেস্ক | ১৮:২০:০০ মিনিট, মে ১০, ২০১৯

গেম অব থ্রোনস বরাবর মুক্তহস্তে খরচ করে বলে খ্যাতি আছে। আগের মৌসুমের একেক পর্বের পেছনে খরচ হয়েছে প্রায় ৬ মিলিয়ন ডলার, আর চূড়ান্ত মৌসুমের ছয় পর্বের জন্য খরচ হয়েছে ১৫ মিলিয়ন ডলার। কিন্তু সর্বকালের সবচেয়ে ব্যয়বহুল এ টেলিভিশন শোকে নিয়ে এ মুহূর্তে চলছে তুমুল সমালোচনা ও হাস্যরস। আর এ পরিস্থিতির জন্য দায়ী একটি ২ ডলারের স্টারবাক কফি কাপ।

রোববার রাতে, চতুর্থ পর্বে উইন্টারফেলের উদযাপন দৃশ্যে দর্শকরা হঠাৎ দেখতে পান একটি সাদা ও সবুজ রঙের কফি কাপ টেবিলে রাখা ডায়েনারিসের সামনে। সেটি মধ্য যুগের কোনো কাপ নয়, একেবারে এ সময়ের ডিসপোজেবল কফি কাপ। যে দৃশ্যে এ ঘটনাটি ঘটে, সেটাও কোনো সাধারণ উদযাপনের দৃশ্য ছিল না; কাহিনীর খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি মুহূর্ত ডায়েনারিস টারগারয়েন তখন স্থির চোখে দেখছিল টোরমুড জন স্নোকে টোস্ট করছে, যা থেকে ডায়েনারিসের এ উপলব্ধি হচ্ছে যে, আয়রনের থ্রোনের দাবিদার তার এ আত্মীয়টির জনপ্রিয়তাও তার জন্য কম হুমকি নয়, আর ঠিক তখনই দর্শক দেখতে পায় ডায়েনারিসের সামনে শোভা পাচ্ছে কাগজের মোড়কে স্টারবাকের একটি কফি কাপ।

স্টারবাকের প্রথম দোকান চালু হয়েছিল সিয়াটলের পাইক প্লেস মার্কেটে ১৯৭১ সালে, আর কাল্পনিক ওয়েস্টরসে থ্রোনসের গোড়াপত্তন ঘটে মধ্য যুগের কোনো সময়ে, এ সময়ের কফি পেতে ড্যানিকে উৎসবে যোগ দেয়ার আগে তার ড্রাগনের পিঠ থেকে নেমে গিয়ে নিশ্চয়ই রাস্তার ধারের কোনো স্টারবাক শপে ঢুঁ মারতে হয়েছে!

বণিক বার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি ও বিষয়বস্তু অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনি।

সম্পাদক ও প্রকাশক: দেওয়ান হানিফ মাহমুদ

বার্তা ও সম্পাদকীয় বিভাগ : বিডিবিএল ভবন (লেভেল ১৭), ১২ কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ, কারওয়ান বাজার, ঢাকা-১২১৫

পিএবিএক্স: ৮১৮৯৬২২-২৩, ই-মেইল: [email protected] | বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন বিভাগ ফ্যাক্স: ৮১৮৯৬১৯