খবর

১৪ দলীয় জোটের সেমিনারে বক্তারা : নিরাপদ সড়কের অন্তরায় সুপারিশ বাস্তবায়ন না হওয়া

নিজস্ব প্রতিবেদক | ০২:১১:০০ মিনিট, এপ্রিল ১৬, ২০১৯

নিরাপদ সড়ক নিশ্চিত ও দেশকে মাদকমুক্ত করতে সরকার গৃহীত সুপারিশ বাস্তবায়ন না হলে দেশে নিরাপদ সড়ক ও মাদকমুক্ত হবে না। রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে গতকাল আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন ১৪ দলের এক সেমিনারে বক্তারা এ কথা বলেন।

‘নিরাপদ সড়ক ও মাদকমুক্ত সমাজ’ শীর্ষক সেমিনারে বক্তারা বলেন, নিরাপদ সড়ক গড়ে তুলতে বিভিন্ন সরকার বিভিন্ন সময়ে নানা সুপারিশ দিয়েছে। সর্বশেষ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও বিভিন্ন পদক্ষেপ নিতে বলেছেন, কিন্তু সে পদক্ষেপগুলোর বাস্তবায়ন এখনো হয়নি। এসব সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নে সংশ্লিষ্টদের দ্রুত পদক্ষেপ গ্রহণ প্রয়োজন।

সভাপতির বক্তব্যে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও জোটের মুখপাত্র মোহাম্মদ নাসিম বলেন, সড়ক নিরাপত্তা নিশ্চিত ও মাদক নির্মূলের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বারবার নির্দেশ দিয়েছেন, কিন্তু তার নির্দেশ বাস্তবায়ন হয়নি বলে সমস্যা এখনো সমাধান হয়নি। জিয়া, এরশাদ, খালেদা জিয়ার আমলে সৃষ্ট অনেক সমস্যা আমরা এখনো সমাধান করতে পারিনি। সড়কে নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে যেসব সুপারিশ বিভিন্ন সময় এসেছে, সেগুলো বাস্তবায়ন দেখতে চাই।

সাবেক নৌ-পরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খান বলেন, যানচালকের অদক্ষতার কথা বলা হয়। কিন্তু চালকদের প্রশিক্ষণের কোনো ব্যবস্থা নেই। সরকার এক লাখ চালককে প্রশিক্ষণ দিচ্ছে, কিন্তু সেটা আমাদের দেশের জন্য নয়, এ চালকদের বিদেশে পাঠানো হবে।

নৌ-পরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেন, বিভিন্ন সরকারের সময় বিআরটিসিকে দুর্নীতিবাজ সংগঠনে পরিণত করা হয়েছিল। দেশে হাইওয়ে বলে কিছু ছিল না, নামমাত্র হাইওয়ে ছিল। এখনো আমরা সেগুলো ঠিক করতে পারিনি। তবে প্রতিটি সেক্টরে ধীরে ধীরে উন্নতি হচ্ছে।

কলামিস্ট সৈয়দ আবুল মকসুদ বলেন, সড়ক দুর্ঘটনা বন্ধ করতে যেসব সুপারিশ দেয়া হয়, সেগুলো বাস্তবায়ন হয় না। সুপারিশ বাস্তবায়নের এ অবহেলা দূর করতে হবে।

আলোচনায় আরো বক্তব্য রাখেন জাতীয় পার্টির মহাসচিব মশিউর রহমান রাঙ্গা, জাতীয় প্রেস ক্লাবের সভাপতি সাইফুল আলম, সাংবাদিক নেতা মনজুরুল আহসান বুলবুল, সাবেক যোগাযোগমন্ত্রী ব্যারিস্টার নাজমুল হুদা, সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির নেতা খন্দকার এনায়েত উল্লাহ, জাতীয় প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি ও সংসদ সদস্য শফিকুর রহমান। গোলটেবিল বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন, জাসদের সভাপতি হাসানুল হক ইনু, সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক দিলীপ বড়ুয়া প্রমুখ।