প্রথম পাতা

রেমিট্যান্স প্রবৃদ্ধি : ভারত-পাকিস্তানের চেয়ে এগিয়ে বাংলাদেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক | ০৩:৩২:০০ মিনিট, এপ্রিল ১৪, ২০১৯

প্রবাসী বাংলাদেশী কর্মীদের বড় অংশই কাজ করছেন মধ্যপ্রাচ্যের তেলসমৃদ্ধ অর্থনীতির বিভিন্ন দেশে। সাম্প্রতিক বছরগুলোয় তেলের মূল্যে মন্দাবস্থা কেটে ওঠায় ঘুরে দাঁড়িয়েছে এসব দেশের অর্থনীতিও। এর প্রভাব পড়েছে সেখানে শ্রমিক পাঠানো দেশগুলোর রেমিট্যান্সপ্রবাহে। ২০১৮ সালে বাংলাদেশে রেমিট্যান্সের প্রবৃদ্ধি হয়েছে প্রায় ১৫ শতাংশ, যা প্রতিবেশী দুই দেশ ভারত ও পাকিস্তানের চেয়েও বেশি। অভিবাসন ও রেমিট্যান্সপ্রবাহ নিয়ে বিশ্বব্যাংকের সর্বশেষ এক প্রতিবেদনে এমন তথ্য উঠে এসেছে।

‘মাইগ্রেশন অ্যান্ড রেমিট্যান্সেস: রিসেন্ট ডেভেলপমেন্টস অ্যান্ড আউটলুক’ শীর্ষক প্রতিবেদনটি প্রকাশ করা হয়েছে গত সপ্তাহে। প্রতিবেদন অনুযায়ী, ২০১৮ সালে বাংলাদেশে রেমিট্যান্সপ্রবাহের প্রবৃদ্ধি হয়েছে ১৪ দশমিক ৮ শতাংশ। এক্ষেত্রে বাংলাদেশের পর রয়েছে ভারত। দেশটিতে গত বছর রেমিট্যান্সপ্রবাহের প্রবৃদ্ধি ছিল প্রায় ১৪ শতাংশ। এছাড়া পাকিস্তানে ৬ দশমিক ৭ ও শ্রীলংকায় ৩ দশমিক ৮ শতাংশ প্রবৃদ্ধি হয়েছে। দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে রেমিট্যান্সপ্রবাহের প্রবৃদ্ধিতে শীর্ষে রয়েছে নেপাল। গত বছর দেশটিতে আসা রেমিট্যান্সের প্রবৃদ্ধি হয়েছে ১৭ দশমিক ৩৯ শতাংশ।

তবে প্রবৃদ্ধির বিবেচনায় দক্ষিণ এশিয়ায় দ্বিতীয় অবস্থানে থাকলেও রেমিট্যান্সের পরিমাণ বিবেচনায় তৃতীয় স্থানে বাংলাদেশ। ২০১৮ সালে বাংলাদেশে রেমিট্যান্স এসেছে ১৫ দশমিক ৫ বিলিয়ন ডলার। এ সময়ে ভারত ও পাকিস্তানে রেমিট্যান্স এসেছে যথাক্রমে ৭৮ দশমিক ৬ ও ২১ বিলিয়ন ডলার। এছাড়া দক্ষিণ এশিয়ার অন্য দেশগুলোর মধ্যে ২০১৮ সালে নেপালে রেমিট্যান্স এসেছে ৮ দশমিক ১ ও শ্রীলংকায় ৭ দশমিক ৫ বিলিয়ন ডলার।

বিশ্বব্যাংকের ঢাকা কার্যালয়ের লিড ইকোনমিস্ট ড. জাহিদ হোসেন এ প্রসঙ্গে বণিক বার্তাকে বলেন, মধ্যপ্রাচ্যেই সবচেয়ে বেশি বাংলাদেশী শ্রমিক কাজ করছেন। তেলের দাম কমে যাওয়ায় দেশগুলো সংকটে পড়েছিল। এ অবস্থার পরিবর্তন হয়েছে। বেশকিছু বিধিনিষেধও শিথিল করা হয়েছে দেশগুলোয়। আর অবৈধ পথে রেমিট্যান্সপ্রবাহ রোধ করতে নেয়া বিভিন্ন পদক্ষেপের কারণে প্রবাসীরা বৈধ পথে রেমিট্যান্স পাঠাতে আগ্রহী হয়ে উঠেছেন। এসবের প্রভাব দেখা যাচ্ছে রেমিট্যান্সের প্রবৃদ্ধিতে।

বণিক বার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি ও বিষয়বস্তু অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনি।

সম্পাদক ও প্রকাশক: দেওয়ান হানিফ মাহমুদ

বার্তা ও সম্পাদকীয় বিভাগ : বিডিবিএল ভবন (লেভেল ১৭), ১২ কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ, কারওয়ান বাজার, ঢাকা-১২১৫

পিএবিএক্স: ৮১৮৯৬২২-২৩, ই-মেইল: [email protected] | বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন বিভাগ ফ্যাক্স: ৮১৮৯৬১৯