খেলা

বার্সেলোনা-অ্যাতলেটিকো দ্বৈরথ : উত্তাপ বাড়িয়ে দিচ্ছেন গ্রিজম্যান

১৯:০৬:০০ মিনিট, এপ্রিল ০৬, ২০১৯

আতোয়াঁ গ্রিজম্যানের সঙ্গে একটি হিসাব বাকি রয়েছে বার্সেলোনার। ফরাসি স্ট্রাইকার যেভাবে বার্সেলোনাকে ‘প্রত্যাখ্যান’ করেছিলেন তা নিশ্চয়ই ভুলে যায়নি ক্যাম্প ন্যু সমর্থকরা। বিষয়টি আসলে শুধুই প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করার নয়, তিনি যে তরিকায় কাজটি করেছিলেন তা নিয়েই আপত্তি। খেলোয়াড়টি ‘ডিসিশন’ নামের এক টেলিভিশন ডকুমেন্টারির মাধ্যমে বার্সেলোনাকে ‘না’ বলে দিয়েছিলেন, তা কাতালান সমর্থকদের ভীষণভাবে হতাশ ও অপমানিত করে। গ্রিজম্যান ইস্যুর কারণেই আজ বার্সেলোনার মাঠে অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদের ম্যাচে থাকবে বাড়তি উত্তাপ।

বিশ্বকাপজয়ী তারকা গ্রিজম্যান হতে পারতেন ন্যু ক্যাম্পের ‘নয়নের মণি’। অথচ তিনি আজ মাঠে নামবেন একজন ‘খলনায়ক’ হিসেবে। গত গ্রীষ্মের সেই নাটকীয়তার পর আজই প্রথম বার্সেলোনা মাঠে খেলতে যাচ্ছেন ২৭ বছর বয়সী ফরোয়ার্ড। বিষয়টি ভুলে যায়নি বার্সেলোনা শিবিরও। সম্প্রতি লা’কিপ এক প্রতিবেদনে দাবি করে, গ্রিজম্যানকে সই করাতে বার্সেলোনাকে প্রস্তাব দিয়েছেন তার এজেন্ট। তবে গত গ্রীষ্মের তিক্ততার কথা মাথায় রেখে বার্সেলোনার নীতিনির্ধারকরা এটি সঙ্গে সঙ্গে বাতিল করে দেন।

তবে আজকের ম্যাচটি শুধুই গ্রিজম্যানের নয়। এ ম্যাচটি অ্যাতলেটিকো ও বার্সেলোনা উভয়ের জন্যই মহাগুরুত্বপূর্ণ। আজ জিতলে শিরোপার পথে এগিয়ে যাবে বার্সেলোনা, তারা হারলে রেসে টিকে থাকবে অ্যাতলেটিকো। এ ম্যাচে কোনো ভুল করতে নারাজ অ্যাতলেটিকো কোচ দিয়েগো সিমিওনে। তাই সাউল নিগুয়েজ, থমাস পার্টে, রদ্রিগো ও কোকোর মতো বিশ্বস্ত সৈনিক দিয়েই সাজাতে চান মধ্যমাঠ, যারা সফলভাবে রুখে দেবেন বার্সেলোনার আর্থার মেলো, সার্জিও বুসকেটস ও ইভান রাকিতিচকে। এ চারজন সিমিওনের স্টাইল সম্পর্কে অবগত এবং তারা জানেন কীভাবে বার্সেলোনার মতো দলকে থামাতে হয়।

সিমিওনের আক্রমণভাগও হতে পারে সমীহ জাগানো। চোট কাটিয়ে গতকাল দলের সঙ্গে পুরোদমে অনুশীলন করেছেন আলভারো মোরাতা ও দিয়েগো কস্তা। তারা যদি গ্রিজম্যানের সঙ্গে আক্রমণভাগে যোগ দেন, তবে তাদের ত্রিমুখী আক্রমণ সামলানো কঠিন হতে পারে বার্সেলোনা রক্ষণের জন্য।

বার্সেলোনার চেয়ে ৮ পয়েন্টে পিছিয়ে রয়েছে অ্যাতলেটিকো। নিজেদের মাঠ ওয়ান্ডা মেট্রোপলিটানোয় চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ফাইনাল খেলার স্বপ্ন ভেঙে গেছে শেষ ষোলোয় জুভেন্টাসের কাছে হেরে। সিমিওনের কষ্ট বাড়িয়ে দিতে পারেন শীর্ষ তারকাদের কয়েকজন। এরই মধ্যে বায়ার্নে নাম লিখিয়েছেন লুকাস হার্নান্দেজ। এছাড়া চলে যেতে পারেন দিয়েগো গডিন, ফিলিপ লুইস, ইয়ান ওবলাক, হোসে জিমিনেজ, পার্টে, নিগুয়েজ। তবে ওবলাক ও গ্রিজম্যানকে হারাতে চান না সিমিওনে। তিনি বলেন, ‘পরের মৌসুমে তাদের ছাড়া আমি ভাবতে পারি না, ক্লাবের সঙ্গে তো চুক্তিও রয়েছে।’ গ্রিজম্যানকে নিয়ে ক্লাব প্রেসিডেন্ট এনরিকে সেরেজো বলেন, ‘আমি নিশ্চিত, আতোয়াঁ অ্যাতলেটিকোতেই থাকবে।’

আজ বার্সার মাঠে জিতলে পয়েন্ট ব্যবধান কমিয়ে ৫-এ নিয়ে আসবে অ্যাতলেটিকো, ম্যাচ বাকি থাকবে সাতটি। তাতে রিয়াল মাদ্রিদেরও আশা বেঁচে থাকবে এবং আইবারকে হারিয়ে তারা ব্যবধান কমাতে পারবে। এ মুহূর্তে বার্সেলোনার চেয়ে ১৩ পয়েন্ট পিছিয়ে রিয়াল মাদ্রিদ, গত মৌসুমে একই সময় ঠিক ১৩ পয়েন্ট দূরে ছিল তারা। এএফপি, মার্কা