আন্তর্জাতিক খবর

মালিতে ‘প্রতিশোধের হামলায়’ ১৩৪ মুসলিম আদিবাসী নিহত

বণিক বার্তা অনলাইন | ১৩:৫৪:০০ মিনিট, মার্চ ২৪, ২০১৯

পশ্চিম আফ্রিকার দেশ মালির দুটি গ্রামে হামলা চালিয়ে বন্দুকধারীরা অন্ততপক্ষে ১৩৪ মুসলিম আদিবাসীকে হত্যা করেছে। শনিবার ডনজো শিকারীদের ঐতিহ্যগত পোশাক পরা সশস্ত্র ব্যক্তিরা এ হামলা চালিয়েছে বলে জানিয়েছেন নিকটবর্তী শহর বানকাসের মেয়র মুলাই গুইন্দো। খবর রয়টার্স।

নিহত ইসলাম ধর্মালম্বী এসব আদিবাসী মূলত ফুলানি নামে পরিচিত। তারা পেশায় পশুপালক।

মেয়র মুলাই গুইন্দো বলেন, স্থানীয় সময় ভোর ৪টার দিকে হামলাকারীরা ওগোসাগু গ্রামের চারদিক ঘেরাও করে এ হামলা শুরু করে। এরপর তারা নিকটবর্তী আরেক ফুলানি গ্রাম ওয়েলিংগারাতেও হামলা চালিয়েছে। গ্রামপুলিশরা এ পর্যন্ত ১৩৪টি মৃতদেহ খুঁজে পেয়েছেন।

দেশটির নিরাপত্তা সূত্রগুলো জানিয়েছে, নিহতদের মধ্যে গর্ভবতী নারী, শিশু ও বৃদ্ধরাও রয়েছেন।

ওগোসাগুর নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক বাসিন্দা জানিয়েছেন, গত সপ্তাহে চালানো এক হামলায় ২৩ সৈন্য নিহতের দায় স্বীকার করে আল কায়েদার অনুগত একটি গোষ্ঠী। সেনা হত্যার দায় স্বীকার করে ওই গোষ্ঠীটি বলেছিল, ফুলানি গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে মালির সেনাবাহিনী ও মিলিশিয়াদের সহিংসতার জবাবেই তারা ওই হামলা চালিয়েছে। তার জেরেই এ হামলা চালানো হয়েছে বলে মনে হচ্ছে।

আধা যাযাবর ফুলানি সম্প্রদায়ের লোকজনের সঙ্গে মালির ডজনো শিকারিদের বিবাদ অনেক পুরনো। উভয় পক্ষের মধ্যে জমি ও পানির দখল নিয়ে বিরোধ চলছে। তবে শনিবারের ঘটনায় হামলাকারীদের পৃষ্ঠপোষকতা দেওয়ার জন্য সেনাবাহিনীকে দুষছে আদিবাসী ফুলানি সম্প্রদায়। তারা জানিয়েছে, মালির সেনাবাহিনী হামলাকারীদের অস্ত্র দিয়ে তাদের ওপর হামলা চালাতে সহায়তা করেছে।

সম্প্রতি ভয়াবহ সহিংসতায় পশ্চিম আফ্রিকার পুরো সাহেল অঞ্চলজুড়ে অরাজকতা সৃষ্টি হয়েছে। এসব সহিংসতায় গত বছর কয়েকশ লোক নিহত হয়েছিল। হানাহানির সমাধান খুঁজতে সম্প্রতি জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের একটি মিশন মালি পরিদর্শন করেছে। তার মধ্যেই সাম্প্রতিক সময়ের সবচেয়ে প্রাণঘাতী হামলার এ ঘটনাটি ঘটল।