প্রথম পাতা

শহিদুল আলমের বিরুদ্ধে মামলার তদন্ত স্থগিত

নিজস্ব প্রতিবেদক | ০১:৪৪:০০ মিনিট, মার্চ ১৫, ২০১৯

আলোকচিত্রী শহিদুল আলমের বিরুদ্ধে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনে মামলার তদন্ত কার্যক্রম তিন মাসের জন্য স্থগিত করেছেন হাইকোর্ট। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনের ৫৭ ধারায় মামলার তদন্ত চলার বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে এক রিটের প্রাথমিক শুনানি নিয়ে বিচারপতি শেখ হাসান আরিফ ও বিচারপতি রাজিক আল জলিলের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ গতকাল রুলসহ এ আদেশ দেন।

আদালতে শহিদুল আলমের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী এএফ হাসান আরিফ, সারা হোসেন, মো. আসাদুজ্জামান ও জ্যোতির্ময় বড়ুয়া। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম ও ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মোখলেছুর রহমান।

শহিদুল আলমের বিরুদ্ধে গত বছরের ৬ আগস্ট তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনের ৫৭ ধারায় করা মামলাটি ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন এবং সংবিধানের ৩১ ও ৩৯ অনুচ্ছেদের সঙ্গে সাংঘর্ষিক হওয়ায় কেন তা আইনগত কর্তৃত্ববহির্ভূত ঘোষণা করা হবে না, তাও জানতে চাওয়া হয়েছে রুলে। স্বরাষ্ট্র সচিব, পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি), রমনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি), পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগের (উত্তর) পরিদর্শক মো. মেহেদী হাসান, মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ও পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগের (উত্তর) পরিদর্শক আরমান আলী এবং ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিমকে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

হাইকোর্টের আদেশের পর অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম সাংবাদিকদের বলেন, এ আদেশের বিরুদ্ধে তারা আপিল বিভাগে আবেদন করবেন।

উল্লেখ্য, গত বছরের ৫ আগস্ট রাতে রাজধানীর ধানমন্ডির বাসা থেকে শহিদুল আলমকে তুলে নেয় পুলিশের গোয়েন্দা শাখা (ডিবি)। ৬ আগস্ট পুলিশ তাকে তথ্যপ্রযুক্তি আইনের মামলায় গ্রেফতার দেখায়। ১০৭ দিন কারাভোগের পর গত ২০ নভেম্বর মুক্তি পান শহিদুল আলম। এরপর মামলার তদন্ত প্রক্রিয়ার বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে ৩ মার্চ হাইকোর্টে রিট করেন তিনি। রিটের শুনানিতে গত বুধবার আদালত মামলাটির নথি তলব করেন।