ভ্রমণ

সাধ্যের মধ্যে ভালো গাড়ি!

ফিচার ডেস্ক | ২০:৩৫:০০ মিনিট, মার্চ ১০, ২০১৯

টয়োটা ইয়েরিস এল সিডান সাব কমপ্যাক্ট তিনটি সংস্করণে পাওয়া যাবে। রয়েছে মিত্সুবিশির মিরাজ জি ফোর। দেখে নিতে পারেন নিশান ভারসা নোট এসের ফিচারগুলো

গত বছর অর্থাৎ ২০১৮ সালের শেষের দিকে বিভিন্ন ব্র্যান্ডের নতুন কিছু গাড়ি এসেছিল। আর চলতি বছরেরই প্রথম দিকে এসেছে নতুন মডেলের ইলেকট্রিক কার, কনসেপ্ট কার ও ফ্যামিলি কার। তবে যারা গাড়ি কেনার কথা ভাবছেন, তারা নিত্যনতুন আসা গাড়িগুলোর মধ্যেও পেয়ে যাবেন সাধ্যের ভেতরেই সুন্দর গাড়ি।

গাড়ির ব্র্যান্ডগুলোর মধ্যে টয়োটা নির্ভরযোগ্য। ২০১৯ সালে টয়োটা ইয়েরিস এল সিডান সাব কমপ্যাক্ট তিনটি সংস্করণে পাওয়া যাবে। এগুলো হচ্ছে এল, এলই ও এক্সএলই। এল সিডানে যোগ করা হয়েছে পাওয়ার উইন্ডো ও মিরর; ৭ ইঞ্চি টাচ স্ক্রিন, পুশ বাটন স্টার্ট, রিমোট কি-লেস এন্ট্রি, অটোমেটিক ইমার্জেন্সি ব্রেকিংসহ বেশকিছু সুবিধা। গাড়িটির গতি তুলনামূলক কম হলেও ড্রাইভ করে আরাম পাওয়া যাবে বলেই আশা করা হচ্ছে। এমন একটি গাড়ি কিনতে কিন্তু খুব বেশি খরচ হবে না। গুনতে হবে কেবল ১৬ হাজার ৩৭০ ডলার।

চলতি বছরের একটু কম দামি গাড়ির তালিকায়  রয়েছে মিত্সুবিশির মিরাজ জি ফোর। পূর্বের তুলনায় এ গাড়িটি এ বছর একটু কম দাম অর্থাৎ প্রায় ১৫ হাজার ডলারেই কেনা যাবে। এতে রয়েছে মিত্সুবিশি মিরাজ ইএস স্ট্যান্ডার্ড ক্রুজ কন্ট্রোল, সিলভার ইন্টেরিওর এবং হাই অ্যাডজাস্টেবল ড্রাইভার সিটের সুবিধা।

যারা বাজেট কারের সন্ধানে রয়েছেন, তারা একবার দেখে নিতে পারেন নিশান ভারসা নোট এসের ফিচারগুলো। এর ১০৯ এইচপি, ১ দশমিক ৬ লিটার ইনলাইন ফোর সিলিন্ডার ইঞ্জিন রয়েছে। আরো আছে অটোমেটিক ভ্যারিয়েবল ট্রান্সমিশনের ব্যবস্থা। দামের ক্ষেত্রেও অনেকটা সামলে নেয়ার মতো। এর দাম ১৬ হাজার ৫৪৫ ডলার।

 

সূত্র: কার অ্যান্ড ড্রাইভার