শেয়ারবাজার

দরবৃদ্ধির শীর্ষে পেনিনসুলা চিটাগং

নিজস্ব প্রতিবেদক | ০০:০৩:০০ মিনিট, ফেব্রুয়ারি ১৯, ২০১৯

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) গতকাল দরবৃদ্ধির শীর্ষে উঠে এসেছে দ্য পেনিনসুলা চিটাগং লিমিটেড। দিনের বেশির ভাগ সময় এ কোম্পানির শেয়ারে কোনো বিক্রয়াদেশ ছিল না। শেষ পর্যন্ত সর্বোচ্চ ৩১ টাকায় দিনের লেনদেন শেষ হয়। শতকরা হিসাবে সমাপনী দর বেড়েছে ৯ দশমিক ৯৩ শতাংশ। সারা দিনে এ কোম্পানির ৩০ কোটি টাকার বেশি শেয়ার হাতবদল হয়।

সর্বশেষ অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুসারে, চলতি হিসাব বছরের প্রথমার্ধে (জুলাই-ডিসেম্বর) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৬৪ পয়সা, যা এর আগের বছর একই সময়ে ছিল ৩২ পয়সা। ৩১ ডিসেম্বর ২০১৮ এ কোম্পানির শেয়ারপ্রতি নিট সম্পদ মূল্য (এনএভিপিএস) দাঁড়িয়েছে ৩০ টাকা ৯৪ পয়সা।

সর্বশেষ সার্ভিল্যান্স রেটিং অনুযায়ী দ্য পেনিনসুলা চিটাগং লিমিটেডের অবস্থান ‘ডাবল এ থ্রি’। ৩০ জুন সমাপ্ত ২০১৮ হিসাব বছরের নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন এবং ২০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত কোম্পানিটির ব্যাংক দায় ও অন্যান্য তথ্যের ভিত্তিতে এ মূল্যায়ন করেছে ক্রেডিট রেটিং এজেন্সি অব বাংলাদেশ (সিআরএবি)।

৩০ জুন সমাপ্ত ২০১৮ হিসাব বছরের জন্য ৫ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দিয়েছে কোম্পানিটি। বার্ষিক ইপিএস ছিল ৬২ পয়সা, আগের বছর যা ছিল ৫৩ পয়সা।

২০১৭ সালের ৩০ জুন সমাপ্ত হিসাব বছরেও ৫ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দেয় পেনিনসুলা চিটাগং। এর আগে ২০১৬ সালের ৩০ জুন সমাপ্ত হিসাব বছরের জন্য ১০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ পান এর শেয়ারহোল্ডাররা।

ডিএসইতে গতকাল পেনিনসুলা চিটাগং শেয়ারের সর্বশেষ দর ছিল ৩১ টাকা। গত এক বছরে শেয়ারটির সর্বনিম্ন দর ছিল ১৯ টাকা ৪০ পয়সা ও সর্বোচ্চ ৩৮ টাকা ৯০ পয়সা।

প্রসঙ্গত, পেনিনসুলা চিটাগং ২০১৪ সালে শেয়ারবাজারে আসে। এর অনুমোদিত মূলধন ৩০০ কোটি ও পরিশোধিত মূলধন ১১৮ কোটি ৬৬ লাখ ৭০ হাজার টাকা। রিজার্ভ ১৪১ কোটি ৮১ লাখ টাকা। কোম্পানির মোট শেয়ার সংখ্যা ১১ কোটি ৮৬ লাখ ৬৬ হাজার ৮০০। এর ৪৫ দশমিক ৫৭ শতাংশ কোম্পানির উদ্যোক্তা-পরিচালকদের কাছে, প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারী ৮ দশমিক ৭৭, বিদেশী বিনিয়োগকারী দশমিক ১৪ ও বাকি ৪৫ দশমিক ৫২ শতাংশ শেয়ার রয়েছে সাধারণ বিনিয়োগকারীদের হাতে।

সর্বশেষ নিরীক্ষিত ইপিএস ও বাজারদরের ভিত্তিতে শেয়ারটির মূল্য আয় অনুপাত বা পিই রেশিও ৫০। হালনাগাদ অনিরীক্ষিত ইপিএসের ভিত্তিতে যা ২৪ দশমিক ২২।