আন্তর্জাতিক ব্যবসা

বাণিজ্য আলোচনা ও প্রণোদনায় এশিয়ার শেয়ারবাজারে চাঙ্গাভাব

বণিক বার্তা ডেস্ক    | ২১:৩১:০০ মিনিট, ফেব্রুয়ারি ১৯, ২০১৯

চলতি সপ্তাহে ওয়াশিংটনে যুক্তরাষ্ট্র ও চীনের মধ্যে বাণিজ্য আলোচনা নিয়ে বিনিয়োগকারীদের আশাবাদ বৃদ্ধিতে গতকাল এশিয়ার শেয়ারবাজারে বেশ চাঙ্গাভাব দেখা গেছে। খবর রয়টার্স।

গত শুক্রবার বেশ বড় পতনের পর সোমবার জাপান বাদে এমএসসিআই এশিয়া-প্রশান্ত মহাসাগরীয় সূচক শূন্য দশমিক ৯০ শতাংশ বেড়েছে। জাপানের নিক্কেই বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১ দশমিক ৮০ শতাংশ। সোমবার সাংহাইয়ের ব্লু-চিপস সূচকও বেড়েছে ২ দশমিক ১০ শতাংশ।

যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে সাপ্তাহিক ছুটি থাকায় এসঅ্যান্ডপি সূচক কিছুটা শ্লথগতির ছিল, অন্যদিকে ইউরোপীয় বাজারে বেশ চাঙ্গাভাব দেখা গেছে।

দীর্ঘমেয়াদি বাণিজ্যযুদ্ধের ইতি ঘটিয়ে চীন ও যুক্তরাষ্ট্র শিগগিরই কোনো একটি চুক্তিতে পৌঁছবে, এ আশাবাদের ওপর ভিত্তি করে ডাউ ও নাসডাক সূচক টানা অষ্টম সপ্তাহ বেড়েছে।

চলতি সপ্তাহে বিশ্বের শীর্ষ দুই অর্থনীতি নিজেদের মধ্যে পুনরায় আলোচনা শুরু করছে। কোনো একটি চুক্তিতে পৌঁছানোর ক্ষেত্রে ১ মার্চের সময়সীমা থেকে সরে আসার ঘোষণা দিতে পারেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। গত সপ্তাহে বেইজিংয়ে পাঁচ দিনব্যাপী আলোচনায় বেশ অগ্রগতির কথা জানিয়েছে উভয় পক্ষ।

তবে উদ্বেগেরও যে জায়গা রয়েছে, সেদিকে ইঙ্গিত করে সিবিএর বিশ্লেষকরা এক বিবৃতিতে বলেন, এখন বা মার্চের শুরুতে যে কোনো সংকট দেখা দেবে না, তা নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছে না। আমরা মনে করি, উভয় পক্ষই একটি চুক্তিতে পৌঁছাতে চাচ্ছে।

বিশ্বের অন্য শক্তিশালী কেন্দ্রীয় ব্যাংকগুলো থেকেই যথোপযুক্ত পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে বলে আশাবাদ বেড়েছে।

প্রণোদনা প্যাকেজ গ্রহণ যে জরুরি হয়ে পড়েছে, তা সোমবার সিঙ্গাপুরের রফতানি এবং জাপানের মেশিনারি পণ্যের বিদেশী ক্রয়াদেশ হ্রাস পাওয়া সংক্রান্ত উপাত্তে উঠে এসেছে।

চলতি বছরের শুরুতে দেখা দেয়া শ্লথগতি নিরসনে বেইজিং এরই মধ্যে পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে এবং বিনিয়োগ খাত চাঙ্গা করতে গত জানুয়ারিতে চীনের ব্যাংকগুলো নতুন ঋণ প্রদান শুরু করেছে।

যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় ব্যাংক ফেডারেল রিজার্ভের সর্বশেষ নীতিনির্ধারণী সভার কার্যবিবরণী বুধবার প্রকাশিত হতে পারে। চলতি বছরে সুদের হার বাড়ানো হবে কী হবে না, সে বিষয়ে পর্যাপ্ত নির্দেশনা পাওয়া যেতে পারে সেখানে। আরো আলোচনা চলছে যে আগের পরিকল্পনার চেয়ে বড় ব্যালান্স শিট রাখবে কিনা।

ইউরোপীয় কেন্দ্রীয় ব্যাংকের (ইসিবি) অলি রেন রোববার এক জার্মান সংবাদপত্রকে জানান, সাম্প্রতিক উপাত্তে ইউরোজোনের অর্থনীতি দুর্বল হওয়ার ইঙ্গিত পাওয়া যাচ্ছে। মুদ্রানীতি লক্ষ্যমাত্রা পূরণ করা না গেলে সুদের হার বর্তমান মাত্রাতেই থাকবে। ব্যাংকঋণ সহায়তার লক্ষ্যে ইসিবি আরেক দফা টার্গেটেড লং-টার্ম রিফিন্যান্সিং অপারেশনস (টিএলটিআরও) ঘোষণা করবে, এ রকম ইঙ্গিতের মধ্যেই এ ঘোষণা এসেছে।