পণ্যবাজার

যুক্তরাষ্ট্রে কয়লা উত্তোলনে মন্দাভাব অব্যাহত

বণিক বার্তা ডেস্ক    | ২০:৫৫:০০ মিনিট, ফেব্রুয়ারি ১৯, ২০১৯

যুক্তরাষ্ট্রের কয়লা উত্তোলন খাতে ধারাবাহিক মন্দাভাব বজায় রয়েছে। বিদায়ী বছরে দেশটিতে জ্বালানি পণ্যটির উত্তোলন আগের বছরের তুলনায় উল্লেখযোগ্য পরিমাণে কমেছিল। মন্দাভাবের ধারাবাহিকতায় চলতি বছর শেষে যুক্তরাষ্ট্রের নিজস্ব কূপগুলো থেকে কয়লা উত্তোলন আগের বছরের তুলনায় ৪ দশমিক ৩ শতাংশ কমে যেতে পারে। মার্কিন এনার্জি ইনফরমেশন অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের (ইআইএ) সাম্প্রতিক প্রতিবেদনে এ সম্ভাবনার কথা জানানো হয়েছে। খবর এসঅ্যান্ডপি গ্লোবাল ও মাইনিংডটকম।

ইআইএর সর্বশেষ শর্ট-টার্ম এনার্জি আউটলুকের (এসটিইও) তথ্য অনুযায়ী, ২০১৭ সালে যুক্তরাষ্ট্রের নিজস্ব কূপগুলো থেকে সব মিলিয়ে ৭৭ কোটি ২০ লাখ টন কয়লা উত্তোলন হয়েছিল। বিদায়ী বছরে যুক্তরাষ্ট্রে জ্বালানি পণ্যটির সম্মিলিত বার্ষিক উৎপাদন কমে দাঁড়ায় ৭৫ কোটি ৫০ লাখ টনে। সেই হিসাবে এক বছরের ব্যবধানে যুক্তরাষ্ট্রে কয়লা উত্তোলন কমেছে ১ কোটি ৭০ লাখ টন। মন্দাভাবের ধারাবাহিকতায় চলতি বছর শেষে দেশটির নিজস্ব কূপগুলো থেকে জ্বালানি পণ্যটির সম্মিলিত উত্তোলন আগের বছরের তুলনায় ৪ দশমিক ৩ শতাংশ কমতে পারে বলে পূর্বাভাস দিয়েছে ইআইএ।

প্রতিষ্ঠানটির সাম্প্রতিক পূর্বাভাস অনুযায়ী, ২০১৯ সাল শেষে যুক্তরাষ্ট্রের নিজস্ব কূপগুলো থেকে সব মিলিয়ে ৭২ কোটি ২০ লাখ টন কয়লা উত্তোলনের সম্ভাবনা রয়েছে। অর্থাৎ এক বছরের ব্যবধানে দেশটিতে জ্বালানি পণ্যটির উত্তোলন কমতে পারে ৩ লাখ ৩০ হাজার টন।

তবে কয়েক বছর ধরে মার্কিন কয়লা উত্তোলনে ধারাবাহিক মন্দাভাব বজায় থাকলেও ১৯৭৮ সালের পর থেকে কখনই দেশটিতে জ্বালানি পণ্যটির সম্মিলিত উত্তোলন ৭০ কোটি টনের নিচে নামেনি। সর্বশেষ ১৯৭৮ সালে যুক্তরাষ্ট্রের কূপগুলো থেকে মোট ৬ কোটি ৭০ লাখ ২ হাজার টন কয়লা উত্তোলন হয়েছিল। এদিকে ২০২০ সাল নাগাদ যুক্তরাষ্ট্রে কয়লার সম্মিলিত উত্তোলন চলতি বছরের তুলনায় কমে যেতে পারে বলে পূর্বাভাস দিয়েছে ইআইএ। প্রতিষ্ঠানটির পূর্বাভাস অনুযায়ী, ২০২০ সাল নাগাদ দেশটিতে সব মিলিয়ে ৬ কোটি ৮২ লাখ টন কয়লা উত্তোলন হওয়ার জোরালো সম্ভাবনা রয়েছে। সেই হিসাবে ২০২০ সাল নাগাদ যুক্তরাষ্ট্রে কয়লার সম্মিলিত উত্তোলন চলতি বছরের তুলনায় ৫ দশমিক ৬ শতাংশ কমতে পারে।

উত্তোলনের পাশাপাশি চলতি বছর যুক্তরাষ্ট্র থেকে আন্তর্জাতিক বাজারে কয়লা রফতানিতেও মন্দাভাবের সম্ভাবনা দেখছে ইআইএ। প্রতিষ্ঠানটির তথ্য অনুযায়ী, ২০১৮ সালে মার্কিন রফতানিকারকরা আন্তর্জাতিক বাজারে সব মিলিয়ে ১১ কোটি ৬১ লাখ টন কয়লা রফতানি করেছিল। চলতি বছর শেষে দেশটি থেকে জ্বালানি পণ্যটির রফতানি আগের বছরের তুলনায় ১৩ দশমিক ৩ শতাংশ কমতে পারে। এর মধ্য দিয়ে ২০১৯ সালে মার্কিন রফতানিকারকরা সব মিলিয়ে ১০ কোটি ১০ লাখ টন কয়লা রফতানি করতে পারে বলে পূর্বাভাস দিয়েছে ইআইএ। সেই হিসাবে এক বছরের ব্যবধানে দেশটি থেকে কয়লা রফতানি কমতে পারে ১ কোটি ৫১ লাখ টন।

মন্দাভাবের ধারাবাহিকতায় ২০২০ সালে যুক্তরাষ্ট্র থেকে আন্তর্জাতিক বাজারে কয়লা রফতানি আরো ৭ দশমিক ৯ শতাংশ কমে ৯ কোটি ৩০ লাখ টনে নেমে আসতে পারে বলে জানিয়েছে ইআইএ। অর্থাৎ আগামী বছরে যুক্তরাষ্ট্র থেকে ২০১৯ সালের তুলনায় ৮০ লাখ টন কম কয়লা রফতানির সম্ভাবনা রয়েছে।

এদিকে যুক্তরাষ্ট্রে বিদ্যুৎ উৎপাদনে কয়লার ব্যবহার ধারাবাহিকভাবে কমে আসছে বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করেছে ইআইএ। প্রতিষ্ঠানটির তথ্য অনুযায়ী, ২০১৮ সালে মার্কিন জাতীয় গ্রিডে ২৭ দশমিক ৭ শতাংশ বিদ্যুৎ জোগান দিয়েছে কয়লাভিত্তিক কেন্দ্রগুলো। চলতি বছর এর পরিমাণ ২৬ শতাংশ নেমে আসতে পারে বলে পূর্বাভাস দিয়েছে ইআইএ। আর ২০২০ সাল নাগাদ যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় গ্রিডে যুক্ত হওয়া বিদ্যুতের মাত্র ২৪ শতাংশ কয়লাভিত্তিক কেন্দ্রগুলো জোগান দিতে পারে বলে মনে করছে প্রতিষ্ঠানটি।